ইউক্রেনের হয়ে যুদ্ধ করলে বিদেশিরা পাবেন নাগরিকত্ব

4

যেসব বিদেশি নাগরিক ইউক্রেনের হয়ে যুদ্ধ করবেন তারা নাগরিকত্বের জন্য যোগ্য হবেন বলে জানিয়েছেন সেদেশের উপ-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়েভেন ইয়েনিন। গত মঙ্গলবার ইয়েনিন বলেন, রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে এবং বৈশ্বিক নিরাপত্তার জন্য লড়াই করতে চায় এমন বিদেশি স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে আঞ্চলিক প্রতিরক্ষায় আন্তর্জাতিক বাহিনী গঠন করছে ইউক্রেন। ইউক্রেনের জাতীয় সংবাদ সংস্থার বরাতে এই তথ্য জানায় সিএনএন। বিদেশি যোদ্ধাদের সংখ্যা বাড়ছে জানিয়ে ইয়েনিন বলেন, এই বিদেশিরা একটি চুক্তি স্বাক্ষর করবেন এবং সামরিক পাসপোর্ট পাবেন। যা পরবর্তীতে তাদের বসবাসের অনুমতিতে রূপান্তরিত হবে। ভবিষ্যতে এই বিদেশিদের মধ্যে যারা ইউক্রেনের নাগরিক হতে আগ্রহী হবেন তাদের জন্য আমাদের আইন একটি পথ দেখাবে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে ১৬ হাজার বিদেশি যোদ্ধাদের প্রথম দলটি ইউক্রেনের পথে রওনা দিয়েছে। তবে সিএনএন স্বতন্ত্রভাবে এই সংখ্যা যাচাই করতে পারেনি। কোনো ধরনের সামরিক প্রশিক্ষণ ছাড়াই ইউক্রেনের দূতাবাস বিদেশি যোদ্ধাদের রিক্রুটে সাহায্য করছে। উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযানের ১৪তম দিন চলছে। এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের নির্দেশের পর ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়ান সেনারা। এ অভিযানের অংশ হিসেবে স্থল, আকাশ ও জলপথে ইউক্রেনে হামলা চালানো হচ্ছে। অভিযান শুরুর পর ইউক্রেনের সেনাবাহিনীও প্রতিরোধের চেষ্টা চালাচ্ছে। এতে দুই পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘাত চলছে।