ইউক্রেনের ড্রোনে গুলি ছুড়তেই প্রাণ গেল ৩ রুশ সৈন্যের

4

রাশিয়ার অভ্যন্তরে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর একটি মানুষবিহীন ড্রোনকে গুলি করে ভূপাতিত করে রুশ সৈন্যরা। পরে স্বল্প উচ্চতায় থাকা সেই ড্রোনটির ধ্বংসাবশেষ পড়ে রাশিয়ার ৩ সৈন্য নিহত হয়েছেন। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,  সোমবার রাশিয়ার সারাতভ অঞ্চলের এঙ্গেলস সামরিক বিমানঘাঁটির কাছে ইউক্রনের মানুষবিহীন একটি ড্রোনকে স্বল্প উচ্চতায় গুলি করা হয়। ফলে ড্রোনটির ধ্বংসাবশেষ পড়ে সেখানে থাকা তিন রুশ সেনা মারাত্মকভাবে আহত হন। সারতভের এই অ্যাঙ্গেলস বিমানঘাঁটিটি মস্কো থেকে প্রায় ৭৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্ব দিকে অবস্থিত।

ইউক্রেনের যুদ্ধ ক্ষেত্র থেকে এই ঘাঁটির অবস্থান অন্তত ১ হাজার কিলোমিটার দূরে। অথচ এই ড্রোন হামলার আগে আরও একবার এই বিমানঘাঁটিতে ড্রোন হামলা চালিয়েছিল ইউক্রেন। এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বলেছেন, তিনি ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধে আলোচনা চাইলেও পশ্চিমা বিশ্ব চায় ঐতিহাসিক রাশিয়াকে ভেঙে ফেলতে। পুতিন বলেছেন, ‘আমরা গ্রহণযোগ্য সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গেই আলোচনায় প্রস্তুত। কিন্তু এটি গ্রহণ করা না করা তাদের ব্যাপার, আমরা যারা আলোচনা করতে অস্বীকার করছি না, তাদের ব্যাপার নয়।’

পুতিন আরও বলেছেন, ‘প্রকৃতপক্ষে, এখানে আমাদের ভূরাজনৈতিক প্রতিপক্ষের উদ্দেশ্য হলো রাশিয়াকে ভেঙে ফেলা, বিশেষ করে ঐতিহাসিক রাশিয়াকে ভেঙে ফেলা।’ এ সময় তিনি উল্লেখ করেন যে, রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মানুষ ঐতিহাসিকভাবেই একই সংস্কৃতি লালন করে এবং প্রতিপক্ষ এ ঐক্য ভেঙে ফেলতে চায়। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পশ্চিমা বিশ্বকে ইঙ্গিত করে আরও বলেন, ‘তারা সব সময়ই বিভাজন তৈরি করে অন্যান্যের শাসন করতে চেয়েছে। কিন্তু আমাদের উদ্দেশ্য অন্য কিছু, আমাদের লক্ষ্য হলো রাশিয়ার জনগণকে আবারও ঐক্যবদ্ধ করা।’