আসামে ভয়াবহ বন্যায় ১৯৫ জনের মৃত্যু

15

চলতি বছরের এপ্রিল থেকে ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছে ভারতের আসাম রাজ্য। বন্যায় প্লাবিত হয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা, হয়েছে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতিও। এর পাশাপাশি বন্যায় প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১৯৫ জন। আসামের রাজ্য সরকার জানিয়েছে, বন্যা ও ধসে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রত্যেকের পরিবারকে ৪ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা এই তথ্য নিশ্চিত করে স্থানীয় সাংবাদমাধ্যমকে জানান, বন্যার কারণে এখনও নিখোঁজ ৩৭ জন। রাজ্যের ইতিহাসে এত বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয় এর আগে তেমন হয়নি।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান, ১৯টি মৃত্যু হয়েছে ধসের জেরে। রাজ্যের ইতিহাসে বন্যার জেরে মৃত্যুর নিরিখে এটি অন্যতম বড় ঘটনা। এপ্রিলের পর থেকে প্রায় ৮৯ লাখ মানুষ বন্যা কবলিত হয়েছিলেন। এই সংখ্যাটি রাজ্যের জনসংখ্যার প্রায় এক তৃতীয়াংশ। সরকারি হিসাব অনুসারে রাজ্যের ৩৫টি জেলার মধ্যে ৩৪টি জেলাই বন্যার কবলে পড়েছিলো। এখন পর্যন্ত ৫৪ হাজার ৮৩৭টি গবাদি পশুর ম্তৃ্যু হয়েছে। ২ লাখ ৪০ হাজার হেক্টর জমি পানির নিচে চলে গিয়েছিলো।

আসামের মুখ্যমন্ত্রী জানান, চলতি বছরে ৭ লাখ ৪২ হাজার ২৫০ জন ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় নিয়েছিলেন। এনডিআরএফ ও এসডিআরএফের টিম ৯৮ হাজার ৫০৯ জন মানুষকে উদ্ধার করে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, চলতি বছর থেকে আমরা একটি নতুন উদ্যোগ নিয়েছি। গৃহস্থালী জিনিসপত্র কেনার জন্য় তাদের আমরা ৩৮০০ টাকা করে দেব। এখনও পর্যন্ত ১৮১,৮৫৯ পরিবারের ব্যাংক অ্য়াকাউন্টে এই টাকা ঢুকে গিয়েছে।