আলিম দারের সেঞ্চুরি

101

03-

মহেন্দ্রক্ষণটা যে কেপটাউনেই হতে যাচ্ছে তা নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল গত বৃহস্পতিবার। যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) দক্ষিণ আফ্রিকা-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় টেস্টের আম্পায়ার প্যানেল ঘোষণা করে। এরপর অপেক্ষা ছিল শুধু মাঠে নামার। শনিবার সেই ম্যাচে মাঠে নামার মধ্য দিয়েই সেঞ্চুরি পূর্ণ হল আলিম দারের। আম্পায়ার হিসেবে শততম ম্যাচ পরিচালনার মাইলফলক স্পর্শ করেছেন তিনি।
এর আগে টেস্ট ক্রিকেটে একশ’ বা এর চেয়ে বেশি ম্যাচে আম্পায়ারিংয়ের রেকর্ড রয়েছে মাত্র দুজনের। আইসিসির এলিট প্যানেলের আম্পায়ারদের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্টিভ বাকনর ১২৮টি এবং দক্ষিণ আফ্রিকার রুডি কোয়ের্টজেন ১০৮টি টেস্ট পরিচালনা করেন।
পাকিস্তানের ৪৭ বছর বয়সী আলিম দার সেই তালিকায় তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে নাম লেখালেন। ব্যক্তিগত খেলোয়াড়ী জীবনে অফস্পিনার হিসেবে ১৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন আলিম দার। কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ না খেলেও ২০০০ সালে আম্পায়ার হিসেবে প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনা করেন তিনি। গুজরানওয়ালায় আলিম দার প্রথম শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান ওয়ানডে ম্যাচে আম্পায়ারিং করেন।
তিন বছর পর ঢাকায় বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ম্যাচে টেস্টে প্রথম আম্পায়ারিং করেন আলিম দার। এ পর্যন্ত আম্পায়ার হিসেবে ৯৯ টেস্ট, ১৭৮ ওয়ানডে ও ৩৫টি টি২০ ম্যাচ পরিচালনা করেন তিনি। ২০০৪ সালে তিনি প্রথম আইসিসির এলিট প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হন। ২০০৯, ২০১০ ও ২০১১ সালে টানা তিনবার আইসিসির বর্ষসেরা আম্পায়ারও নির্বাচিত হন।