আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি সুন্দর নির্বাচন করার : চাঁপাইনবাবগঞ্জে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা

21

বিরোধিতার জন্য বিরোধিতা পরিহার করে সুন্দর একটা নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেছেন, আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি সুন্দর একটা নির্বাচন করার।
বৃহস্পতিবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২টি সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনে উপনির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার এ কে এম গালিভ খাঁন।
রাশেদা সুলতানা বলেন- কোনো একটি জায়গায় বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা ঘটতেই পারে। তাই বলে গোটা নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙে পড়বে তা আমি বিশ্বাস করি না। তিনি বলেন- আগামী ১ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের মেলবন্ধন থাকবে। পর্যাপ্ত পরিমাণে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত থাকবে। ভোটাররা নির্বিঘেœ ভোট কেন্দ্রে গিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে নিজের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে যাবেন।
৩০০ আসনে নির্বাচন প্রসঙ্গে ইসি বলেন, একটি আসনের নির্বাচনের মাপকাঠি দিয়ে বিচার করা যায় না। গাইবান্ধার নির্বাচন বন্ধ হওয়ার পরও আমরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করেছি, ৬১টি জেলা পরিষদ নির্বাচন করেছি, রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন করেছি এবং গাইবান্ধার নির্বাচনটাও করেছি। এসবের কোনোটিতে সিসি ক্যামেরা ছিল, কোনোটিতে ছিল না। তারপরও সুষ্ঠু-সুন্দরভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।
রাশেদা সুলতানা বলেন, ‘ইভিএম নিয়ে কতিপয় রাজনৈতিক দলের অনাস্থা রয়েছে। কিন্তু আমি বলি, এখন পর্যন্ত যতগুলো আমরা ইলেকশন করেছি তাতে মনে হয় না যে ইভিএম নিয়ে অনাস্থা আনার মতো ঘটনা ঘটেছে। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি, যাতে একটা সুন্দর ইলেকশন হয়। ইভিএমে কোনো ত্রুটি থাকলে আমাদের জানান। আমরা তা দূর করার চেষ্টা করব।’ আমরা বিশ্বাস করি, আস্থা রাখি প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংগ্রহণ করবে এবং একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন হবে, বলেন তিনি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেনÑ নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব ফরহাদ হোসেন খান, রাজশাহী বিভাগের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের উপনির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার দেলোয়ার হোসেন, পুলিশ সুপার এ এইচ এম আব্দুর রকিব, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম, জেলা নির্বাচন অফিসার মোতাওয়াক্কিল রহমান। প্রার্থীদের মধ্যে সদর আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. আব্দুল ওদুদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী সামিউল হক লিটনসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (নাচোল-গোমস্তাপুর-ভোলাহাট) আসনে উপনির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসারদের নিয়ে মতবিনিময় সভায় যোগ দেন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় তিনি একজন ভোটারের গোপনীয়তা যেন ফাঁস না হয়, সে লক্ষে কাজ করার জন্য প্রিজাইডিং অফিসারদের নির্দেশনা প্রদান করেন।
জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন- নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব ফরহাদ হোসেন খান, রাজশাহী বিভাগের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের উপনির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার দেলোয়ার হোসেন, পুলিশ সুপার এ এইচ এম আব্দুর রকিব, জেলা নির্বাচন অফিসার মোতাওয়াক্কিল রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারমান আব্দুল কাদের ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাইমেনা শারমীন।
পরে ভোলাহাট, গোমস্তাপুর ও নাচোল উপজেলার প্রিজাইডিং অফিসারগণের মতামত ও সার্বিক দিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।