আবারও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া

1

প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে উত্তেজনা বাড়িয়ে আবারও বেশ কিছু ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে পারমাণবিক ক্ষমতাধর দেশ উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী গতকাল রোববার এ তথ্য দিয়েছে। খবর এএফপির। কয়েকদিন আগে পিয়ংইয়ং জানিয়েছিল, তারা পীত সাগরে বেশ কয়েকটি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। সে সময় দেশটি বলেছিল, নতুন প্রজন্মের ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ছিল এগুলো।

নতুন বছরের শুরু থেকেই উত্তর কোরিয়া তার অস্ত্র সম্ভারের ব্যাপক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করেছে। এর মধ্যে রয়েছে সলিড ফুয়েল চালিত হাইপারসনিক ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র, যেগুলো পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম এবং পানির নিচ দিয়ে লক্ষবস্তৃতে আঘাত করতে পারে। এদিকে গতকাল রোববার দক্ষিণ কোরিয়ার জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ এক বিবৃতিতে জানান, দেশটির সেনাবাহিনী সকাল ৮টায় উত্তর কোরিয়ার সিনপো এলাকার জলসীমায় বেশ কয়েকটি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্ত করেছে।

জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ জানান, দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার বিষয়টি বিশ্লেষণ করছে। এ ছাড়া উত্তর কোরিয়ার বাড়তি তৎপরতাও পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানানো হয়। ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা নিষিদ্ধ হলেও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে জাতিসংঘের আরোপিত নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়ে না। জেট প্রপেল্ড ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে বেশ নিচু দিয়ে উড়ে যেতে পারে।

আর এ কারণে এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্ত করা ও আটকে দেওয়া খুবই কঠিন। গত বৃস্পতিবার উত্তর কোরিয়া জানায়, তারা নতুন প্রজন্মের কৌশলগত ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের প্রথম পরীক্ষা চালিয়েছে। অন্যদিকে, ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার পর উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ বলেছে, এই পরীক্ষা দেশটির অস্ত্র সম্ভারের উৎকর্ষায়ণে একটি নিয়মিত ও বাধ্যতামূলক কর্মকা-। তবে বার্তা সংস্থাটি ঠিক কয়টি ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয়েছে, সে ব্যাপারে কোনো তথ্য সরবরাহ করেনি।