আন্দোলনের নামে নাশকতা করতে দেয়া হবে না : তাজুল

4

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, আন্দোলনের নামে কেউ হামলা-ভাংচুর ও বোমাবাজি করে জনজীবন অতিষ্ঠ করার চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, আন্দোলন মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু এই অধিকারের নামে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করে মানুষের জীবন দুর্বিষহ করে তোলার অধিকার কারো নেই।
তাজুল ইসলাম শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
তাজুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ শেষ বা ধ্বংস হয়ে গেল, মানবতা ভূলুণ্ঠিত হলো বলে যারা চিৎকার করছেন, তারা প্রমাণ করে দেন, যে কিভাবে দেশ শেষ হয়ে গেল। তিনি বলেন, দেশের মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সারাজীবন লড়াই-সংগ্রাম করে দেশ স্বাধীন করেছেন। সেই স্বপ্ন পূরণে তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, আর স্বাধীনতাবিরোধী চক্র দেশ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। কিন্তু বাস্তবতা হলো, শেখ হাসিনার হাতে যতদিন দেশ থাকবে, ততদিন বাংলাদেশ পথ হারাবে না।
তাজুল ইসলাম জানান, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে সারা বিশ্বের মানুষ কষ্টে আছে। আমাদের দেশের মানুষের ওপরেও এই যুদ্ধের প্রভাব পড়েছে। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের মহামারির সংকটের পর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পৃথিবীতে অস্থিরতা বিরাজ করছে। সংকট মোকাবিলা করতে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে এটা সাময়িক সময়ের জন্য। এই সংকট মোকাবিলায় সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।
উপজেলা পরিষদ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হারুন-অর-রশিদ হাওলাদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রেবেকা সুলতানা এবং দেশের অধিকাংশ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ভাইস চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।