আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে প্রিটোরিয়াসের বিদায়

2

দক্ষিণ আফ্রিকার পেস বোলিং অলরাউন্ডার ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস বিদায় বলে দিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে। বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে মনোযোগ দিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার (সিএসএ) বিবৃতিতে সোমবার অবসরের সিদ্ধান্ত জানান ৩৩ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। “আমার ক্যারিয়ারের বাকি সময়ের জন্য মনোযোগ টি-টোয়েন্টি ও অন্য সংক্ষিপ্ত সংস্করণে সরিয়ে নিচ্ছি আমি। ফ্রি এজেন্ট হলে সংক্ষিপ্ত সংস্করণে সেরা খেলোয়াড় হওয়ার লক্ষ্য অর্জন সহজ হবে। আমার ক্যারিয়ার ও পারিবারিক জীবনে ভালো ভারসাম্যও আসবে।” দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে প্রিটোরিয়াস খেলেছেন ৩০ টি-টোয়েন্টি, ২৭ ওয়ানডে ও তিন টেস্ট। সব মিলিয়ে উইকেট নিয়েছেন ৭৭টি। খেলেছেন একটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। টি-টোয়েন্টিতে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড তার। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে লাহোরে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৭ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট।

এই সংস্করণে প্রিটোরিয়াসের ব্যাটিং স্ট্রাইক রেট ১৬৪। ২০১৯ সালে জোহানেসবার্গে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছিলেন ৪২ বলে অপরাজিত ৭৭ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। ২০২২-২৩ মৌসুমে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ১৬ ক্রিকেটারের একজন তিনি। আইপিএলে প্রিটোরিয়াস খেলেছেন সুন্নাই সুপার কিংসের হয়ে। ইংল্যান্ডের একশ বলের প্রতিযোগিতা ‘দা হান্ড্রেড’-এ খেলেছেন ওয়েলস ফায়ারের হয়ে, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের জার্সিতে। দক্ষিণ আফ্রিকায় আসন্ন এসএ টি-টোয়েন্টির জন্য প্রায় আড়াই লাখ ডলারে তাকে দলে নিয়েছে ডারবান সুপার জায়ান্টস। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম পছন্দের অলরাউন্ডার ছিলেন প্রিটোরিয়াস। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরুর আগে আঙুলে চোট পেয়ে তিনি ছিটকে যান। তারপর থেকে সাদা বলের দলে জায়গা হারান মার্কো ইয়ানসেনের কাছে।

২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ডেথ ওভারে দারুণ বোলিংয়ে নজর কাড়েন তিনি। টুর্নামেন্ট শেষ করেন ৯ উইকেট নিয়ে, স্ট্রাইক রেট ছিল ৯.৭। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে প্রিটোরিয়াসের অভিষেক হয় ২০১৬ সালে, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে। ব্যাট হাতে দ্বিতীয় ইনিংসে করেন প্রথম ফিফটি।২০১৯ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পাঠ চুকিয়ে ইংলিশ কাউন্টি দল নটিংহ্যামশায়ারের হয়ে কলপ্যাক চুক্তি করার কাছাকাছি চলে গিয়েছিলেন তিনি। তবে বোর্ডের তখনকার ক্রিকেট পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ তাকে জাতীয় দলের চুক্তিতে নিতে রাজি করান। ওই বছরের শেষ দিকে হয় তার টেস্ট অভিষেক। আগামী আট মাস প্রিটোরিয়াসের জন্য বেশ ব্যস্ত ক্রিকেট সূচি থাকবে। এসএ টি-টোয়েন্টি চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। মার্চের মাঝামাঝি আইপিএল শুরু হয়ে শেষ হবে মে মাসে। অগাস্টে শুরু হবে ‘দা হান্ড্রেড।’ আগামী অক্টোবরে ভারতে অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নেদারল্যান্ডস ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা।