আট ছবিতে একসঙ্গে বুবলি-রোশান

4

ঢাকাই চলচ্চিত্রে জুটি হয়ে সবচেয়ে বেশি ছবি করেছেন আলমগীর ও শাবানা। ১৩০টি ছবিতে পাওয়া গেছে তাঁদের। এ ছাড়া রাজ্জাক-শাবানা, ফারুক-ববিতা, সালমান শাহ-শাবনূর, মৌসুমী-ওমর সানি, শাবনূর-রিয়াজ ও শাকিব-অপু বিশ্বাস জুটিকেও দারুণ পছন্দ করেছে দর্শক। এবার জিয়াউল রোশান ও শবনম বুবলি জুটি হিসেবে আশার আলো দেখাচ্ছেন। এই জুটির এখন পর্যন্ত মাত্র একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ‘চোখ’ ছবিটিতে তাঁদের সঙ্গে আছেন নিরব হোসেনও। ছবিটি সাফল্য না পেলেও আরো সাতটি ছবিতে রোশান-বুবলিকে চুক্তিবদ্ধ করেছেন নির্মাতারা। জসিম উদ্দীন জাকিরের ‘মায়া-দ্য লাভ’, মোহাম্মদ ইকবালের ‘রিভেঞ্জ’ ও ‘বিট্রে’, মাহমুদ হাসানের ‘প্রেম পুরাণ’, সৈকত নাসিরের ‘লন্ডন লাভ’, দেবাশীষ বিশ্বাসের ‘তুমি যেখানে আমি সেখানে’ ও সর্বশেষ রাখাল সবুজের ‘পুলসিরাত’-এ চুক্তিবদ্ধ হলেন দুজন। ‘পুলসিরাত’ সরকারি অনুদানের ছবি।

২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে মানিকগঞ্জে ছবিটির শুটিং শুরু হবে। বুবলির ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল শাকিব খানের হাত ধরে। ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’-এর সঙ্গে ‘বসগিরি’, ‘শ্যুটার’, ‘রংবাজ’, ‘অহংকার’, ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়া’সহ টানা ১০টি ছবি করেছিলেন। তখন অনেকেই মনে করেছিলেন, বুবলি হয়তো শাকিবের বাইরে আর কোনো ছবিই করবেন না। যেমন-অপু বিশ্বাস একসময় শাকিবের বাইরে ছবি করেননি। তবে শাকিবের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে টানাপড়েন শুরু হলে অন্য নায়কদের সঙ্গে অভিনয় শুরু করেন। বুবলি প্রথম ‘চোখ’ ছবি করেন রোশান ও নিরবের সঙ্গে। এরপর আদর আজাদের সঙ্গে করেন ‘তালাশ’ ও ‘লোকাল’। বর্তমানে এই জুটির হাতে আছে ‘খেলা হবে’। নিরবের সঙ্গে বুবলি করেছেন ‘ক্যাসিনো’ ও ‘কয়লা’।

‘ক্যাসিনো’ মুক্তি পেলেও ‘কয়লা’ আছে মুক্তির অপেক্ষায়। মাহফুজ আহমেদের সঙ্গে ‘প্রহেলিকা’ করেও আলোচিত হয়েছেন। তবে সবাইকে ছাপিয়ে গেছেন রোশান। আটটি ছবিতে বুবলির নায়ক তিনি। সংখ্যাটা আরো বাড়বে আগামী বছর, সেই ইঙ্গিত দিলেন এই অভিনেতা। রোশান বলেন, ‘সারা পৃথিবীতেই জুটি প্রথা রয়েছে। দর্শক আসলে তার প্রিয় নায়ককে প্রিয় নায়িকার সঙ্গেই দেখতে পছন্দ করে। আমার সঙ্গে বুবলির মাত্র একটা ছবি মুক্তি পেয়েছে। ফলে দর্শক চাহিদার কথা এখনই বোঝা যাচ্ছে না। তবে নির্মাতারা যে আমাদের জুটি হিসেবে পছন্দ করেছেন, সেটা বোঝা যাচ্ছে। পরিচালকরা আমাদের ওপর যে বিশ্বাস রেখেছেন, আমরা পর্দায় তার প্রমাণ দিতে পারলেই সার্থক হব। চেষ্টা করছি নিজেদের সেরা অভিনয়টা করার, যেন দর্শকও আমাদের পছন্দ করে।’