দৈনিক গৌড় বাংলা

রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

আগামী আইপিএলেও ধোনিকে চায় চেন্নাই

মাহেন্দ্র সিং ধোনি সিদ্ধান্ত জানাবেন তার সময় হলেই। সেই সময়ের অপেক্ষায় আছে ভক্ত-সমর্থকদের মতো তার দল চেন্নাই সুপার কিংসও। তবে নিজেদের চাওয়াটুকুও জানিয়ে রাখলেন চেন্নাইয়ের প্রধান নির্বাহী কাসি বিশ্বনাথান। আগামী আইপিএলেও ধোনিকে পেতে তারা খুবই আগ্রহী। গত কয়েক মৌসুম ধরেই আইপিএলের আগে-পরে বা টুর্নামেন্ট চলার সময় যে প্রশ্নটি নিয়মিত গেছে, সেটি উঠছে এবারও। এটিই কি ধোনির শেষ আইপিএল? পরের আইপিএলে তাকে দেখা যাবে? চেন্নাই সুপার কিংসের ইউটিউব চ্যানেলে সেই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করলেন দলের প্রধান নির্বাহী। সেখানে মিশে থাকল অনিশ্চয়তা, সঙ্গে রইল আশাবাদও। “আমি জানি নাৃ এই প্রশ্নের উত্তর কেবল এমএস (ধোনি) নিজেই দিতে পারে। আমাদের দিক থেকে ব্যাপারটি হলো, আমরা সবসময় তার সিদ্ধান্তকে সম্মান করে আসছি এবং এবারও তার ওপরই ছেড়ে দিয়েছি।” “এখনও পর্যন্ত যা জানি, সে সবসময়ই নিজের সিদ্ধান্ত নিজে নেয় এবং সময় হলে তা ঘোষণা করে। আমাদের আশা, এবারও সময় হলেই তার সিদ্ধান্ত জানা যাবে। তবে আমরা খুব, খুবই আশাবাদী যে, পরের বছরও তাকে আমরা চেন্নাইয়ে পাব। এটিই আমার ও সমর্থকদের দৃষ্টিভঙ্গি ও প্রত্যাশা।” ধোনির বয়স ৪৩ পূর্ণ হবে মাস দেড়েক পরই। তবে পারফরম্যান্স তার এবারও ছিল বেশ ভালো। ব্যাট হাতে তার যে ভূমিকা ছিল, সেখানে সফল তিনি। ৫৩.৬৬ গড়ে ১৬১ রান করেছেন ২২০.৫৪ স্ট্রাইক রেটে। এবারের আসরে অন্তত একশ রান করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট তার। এবার নিয়ে টানা তিন মৌসুমে আইপিএলে ধোনির প্রতিটি ম্যাচে প্রতিটি মাঠেই বিদায়ের আবহ তৈরি হয়েছে তাকে ঘিরে। ভারতের সব প্রান্তে গিয়েই দর্শকদের কাছ থেকে দারুণ ভালোবাসা পেয়েছেন। তিনি মাঠে নামলেই নিজ দল বা প্রতিপক্ষ ভুলে গর্জন উঠেছে গ্যালারিতে। তিনি মাঠে থাকার পুরো সময়টাতে দেখা গেছে দর্শকের প্রবল উল্লাস। তার বিদায়ের আদর্শ প্রেক্ষাপট তৈরি হয়েছিল গত মৌসুমে। মৌসুম শুরুর আগে তিনি বলেছিলেন, ভক্তদের জন্য আরও এক মৌসুম খেলতে চান। যথারীতি আসরজুড়ে তাকে ঘিরে ছিল উন্মাদনা। তার নেতৃত্বে চেন্নাই পঞ্চম আইপিএল ট্রফিও জিতে নেয়। তবে শেষ পর্যন্ত বিদায় বলেননি তিনি। খেলে যান এই মৌসুমেও। সম্প্রতি টাইমস অব ইন্ডিয়ার একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কয়েক মাস পর সিদ্ধান্ত নিতে পারেন ধোনি। আগামী মৌসুমের আগে আইপিএলের মেগা নিলাম আছে। ধোনির সিদ্ধান্ত তাই চেন্নাইয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। চেন্নাইয়ে দীর্ঘদিনের পথচলায় দলের প্রতীক হয়ে ওঠা কোচ স্টিভেন ফ্লেমিং নিয়েও ভারতীয় ক্রিকেটে অনেক আলোচনা, কৌতূহল ও গুঞ্জন চলছে। ভারতের জাতীয় দলের দায়িত্ব পাওয়ার সম্ভাবনায় তিনি আছেন বলে সংবাদমাধ্যমে খবর হয়েছে। তবে চেন্নাইয়ের প্রধান নির্বাহী সেই সম্ভাবনা কম বলেই মনে করেন। “আমি মজা করে স্টিভেনকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, ‘ভারতের কোচের দায়িত্বের জন্য আবেদন করেছো?’ সে হাসতে হাসতে জবাব দিয়েছে, ‘আপনি কি চান আমি আবেদন করি?’ আমি জানি, জাতীয় দলের দায়িত্বটা তার ভাবনায় থাকবে না, কারণ বছরে ৯-১০ মাস (কোচিংয়ে) সম্পৃক্ত থাকতে চায় না সে। এটা আমার মনে হচ্ছে আর কী। তার সঙ্গে এটা নিয়ে বেশি কথা আর হয়নি।”

About The Author