আগামীকাল চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন

40

  • সাধারণ আসন ৫টি
    সংরক্ষিত আসন ২টি
    ভোট কেন্দ্র ৫টি
    ভোটার ৬৫৯ জন

আগামীকাল সোমবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের ২টি সংরক্ষিত ও ৫টি সাধারণ ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ করা হবে। সকাল ৯টায় শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ চলবে দুপুর ২টা পর্যন্ত। সকল প্রকার প্রচারণা শেষ হয়েছে। রবিবার নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে ভোট কেন্দ্রে পৌঁছে গেছেন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা।
আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ ও আনসার সদস্যদের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরাও প্রস্তুত রয়েছেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সুষ্ঠুভাবে অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রশাসন বদ্ধপরিকর বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার এ কে এম গালিভ খাঁন।
এই নির্বাচনে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোতাওয়াক্কিল রহমান জানান, রবিবার দুপুরের পর থেকে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে ভোট কেন্দ্রে চলে গেছেন। ৫টি সাধারণ ও ২টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের জন্য ৫ জন প্রিজাইডিং, ১০ জন সহকারী প্রিজাইডিং এবং ২০ জন পোলিং কর্মকর্তা হিসেবে ভোটগ্রহণ করবেন। তাদেরকে গত ১১ ও ১২ নভেম্বর ইভিএমে ভোটগ্রহণ করতে হয় সে বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান, প্রতিটি কেন্দ্রে ১ জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ৫ কেন্দ্রের জন্য ১ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
এদিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) এস.এ.এম. ফজল-ই-খুদা জানান, প্রতিটি কেন্দ্রে ২০ জন করে পুলিশ ও ৬ জন করে আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন।
অন্যদিকে র‌্যাব-৫, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক লে. কমান্ডার রুহ-ফি-তাহমিন তৌকির জানান, প্রতিটি থানায় একটি করে র‌্যাবের টহল দল নির্বাচনের কাজে দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও স্ট্রাইকিং ফোর্স দায়িত্ব পালন করবে বলে জানা গেছে।
এবার জেলার ৫টি উপজেলায় ৫টি সাধারণ ওয়ার্ডে ২০ জন এবং ২টি সংরক্ষিত আসনে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাদের মধ্যে ১ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে (সদর উপজেলা) মোহা. আব্দুল জলিল বৈদ্যুতিক পাখা, মোহা. সেলিম রেজা টিউবওয়েল, মো. আবুল কালাম আজাদ তালা, মো. আব্দুল হাকিম হাতি, মো. জালাল উদ্দিন উটপাখি, মো. রফিকুল ইসলাম অটোরিকশা ও মো. শহিদুল ইসলাম বক প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে মো. রফিকুল ইসলাম ভোট করবেন না বলে জানিয়েছেন।
২ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে (নাচোল উপজেলা) মো. আনারুল ইসলাম টিউবওয়েল, মো. তারিক-উজ-জামান সুমন তালা ও মো. রয়েল বিশ্বাস অটোরিকশা প্রতীকে ভোট করছেন। তবে এদের মধ্যে রয়েল বিশ্বাস সংবাদ সম্মেলন করে ভোট না করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন। ফলে প্রকৃতপক্ষে ভোটের লড়াইটা হবে দুজনের মধ্যে।
৩ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে (গোমস্তাপুর উপজেলা) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে কবীর আহম্মেদ খান টিউবওয়েল, মো. আশরাফুল হক অটোরিকশা, মো. মোকসেদুর রহমান হাতি ও মো. হাবিবুর রহমান তালা প্রতীকে ভোট করছেন।
৪ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে (ভোলাহাট উপজেলা) ভোটের লড়াইয়ে নেমেছেন ৪ জন। এদের মধ্যে ২ জন নারী ও ২ জন পুরুষ রয়েছেন। তারা হলেনÑ মোসা. উম্মে নূরজাহান নিশি (তালা), মোসা. হোসনে আরা (হাতি), মো. কামরুল ইসলাম (বৈদ্যুতিক পাখা) ও মো. হারুন অর রশিদ (টিউবওয়েল)।
অন্যদিকে ৫ নম্বর সাধারণ ওয়র্ডে (শিবগঞ্জ উপজেলা) থেকে ভোটের মাঠে রয়েছেন ২ জন। এদের মধ্যে মোহা. কামাল উদ্দিন হাতি ও আব্দুস সালাম তালা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।
এদিকে ১ নম্বর সংরক্ষিত আসন থেকে ভোটের লড়াই করছেন ২ জন। তারা হলেন- মোসা. কাজলেমা বেগম (ফুটবল) ও মোসা. তাসলিমা খাতুন (হরিণ)।
অন্যদিকে ২ নম্বর সংরক্ষিত আসন থেকে হরিণ প্রতীকে ভোট করছেন মোসা. শাহিদা খাতুন, মাইক প্রতীকে শামীমা জাহান ও ফুটবল প্রতীকে সাবিহা শবনম।
সদর উপজেলা আসনে ভোটার হচ্ছেনÑ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র, পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলরবৃন্দ এবং বালিয়াডাঙ্গা, গোবরাতলা, ঝিলিম, বারঘরিয়া, মহারাজপুর, রানীহাটি, চরঅনুপনগর, দেবীনগর, আলাতুলি, শাহজাহানপুর, ইসলামপুর, চরবাগডাঙ্গা, নারায়ণপুর ও সুন্দরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা সদস্যগণ।
অনুরূপভাবে ২ নম্বর আসনে ভোটার হচ্ছেনÑ নাচোল উপজেলা পরিষদ, নাচোল পৌরসভা ও নাচোল সদর, নেজামপুর, কসবা ও ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, মেয়র ও পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলর এবং চেয়ারম্যান ও পুরুষ মহিলা সদস্যবৃন্দ।
সাধারণ আসন ৩ গোমস্তাপুরেও অনুরূপভাবে ভোটার হচ্ছেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, রহনপুর পৌরসভার মেয়র, পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলর, গোমস্তাপুর, রহনপুর, চৌডালা, রাধানগর, পারবতীপুর, বোয়ালিয়া, আলীনগর, বাঙ্গাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা সদস্যগণ।
সাধারণ আসন ৪ ভোলাহাটে ভোটার হলেন- ভোটার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা সদস্যগণ।
সাধারণ আসন নম্বর ৫ শিবগঞ্জে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়র, পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলর, শাহবাজপুর, মোবারকপুর, কানসাট, শ্যামপুর, দাইপুকুরিয়া, ধাইনগর, বিনোদপুর, মনাকষা, দুর্লভপুর, পাঁকা, উজিরপুর, ছত্রাজিতপুর, নয়ালাভাঙ্গা, ঘোড়াপাখিয়া ও চককীর্তি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা সদস্যবৃন্দ ভোটার হিসেবে ভোট প্রদান করবেন।
মোট ভোটার রয়েছেন ৬৫৯ জন। ভোট কেন্দ্র ৫ উপজেলায় ৫টি এবং ভোটকক্ষের সংখ্যা ১০টি। ১ নম্বর ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র গ্রিন ভিউ স্কুল, ২ নম্বরের নাচোল মহিলা ডিগ্রি কলেজ, ৩ নম্বরের রহনপুর ইউসুফ আলী সরকারি কলেজ, ৪ নম্বরের ভোলাহাট রামেশ্বর পাইলট ইনস্টিটিউট এবং ৫ নম্বরের ভোট কেন্দ্র হচ্ছে শিবগঞ্জ ১২নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
উল্লেখ্য, এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিনকে ইতোমধ্যে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।