আগস্ট মাসের ১৬ দিনে রেমিটেন্স এসেছে ১১৭ কোটি ডলার

8

চলতি আগস্ট মাসের ১৬ দিনে ১১৭ কোটি ১০ লাখ ডলার দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। যা গত বছরের আগস্টের একই সময়ের চেয়ে ১৬ দশমিক ৩০ শতাংশ বেশি। গত বছরের ১ থেকে ১৬ আগস্ট ১০০ কোটি ৭০ লাখ (১ বিলিয়ন) ডলার পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা।
বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, চলতি আগস্ট মাসে প্রতিদিন গড়ে রেমিটেন্স এসেছে ৭ কোটি ২৬ লাখ ডলার। অর্থাৎ প্রবাসীদের পাঠানো এই রেমিটেন্স প্রবাহ বেড়েই চলেছে। জুলাই মাসের পর আগস্টেও প্রবাসী আয়ের গতি বেশ ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, ১ জুলাই থেকে শুরু হওয়া নতুন অর্থবছরের প্রথম দেড় মাসে (১ জুলাই থেকে ১৬ আগস্ট) ৩২৮ কোটি ৮০ লাখ (৩.২৭ বিলিয়ন) ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। অর্থাৎ আগের বছরের একই সময় (দেড় মাসে) হিসাবে বেশি এসেছে ১৩ দশমিক ৫০ শতাংশ। ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম দেড় মাসে (২০২১ সালের ১ জুলাই থেকে ১৬ আগস্ট) ২৮৭ কোটি ৮০ লাখ (২.৮৮ বিলিয়ন) ডলার পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা।
এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, গত ১৬ দিনের মতোই মাসের বাকি দিনগুলোতে ইতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকবে। গত জুলাই মাসের মতো চলতি আগস্ট মাসেও ২ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিটেন্স দেশে আসবে।
প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাসে ২০৯ কোটি ৬৯ লাখ ১০ হাজার (২.১ বিলিয়ন) ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা, যা ছিল গত ১৪ মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। আর গতবছরের জুলাই মাসের চেয়ে বেশি ছিল ১২ শতাংশ।
এদিকে চলতি অর্থবছরের শুরু থেকেই রেমিটেন্সের বিস্ময়কর উল্লম্ফন দেখা যাচ্ছে। এই প্রবণতা অব্যাহত থাকলে ২০২২-২৩ অর্থবছরে তৈরি হবে নতুন রেকর্ড। প্রসঙ্গত, ২০২১-২২ অর্থবছরে প্রবাসী আয় কমে যায়। অর্থবছরজুড়ে ২ হাজার ১০৩ কোটি (২১.০৩ বিলিয়ন) ডলার এসেছে। অর্থাৎ গড়ে প্রতিদিন ৫ কোটি ৭৬ লাখ ডলার পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। তবে প্রবাসী আয়ে বড় উল্লম্ফন ঘটে ২০২০-২১ অর্থবছরে। সে বছর ২ হাজার ৪৭৮ কোটি (২৪.৭৮ বিলিয়ন) ডলার রেমিটেন্স পাঠান প্রবাসীরা। ওই অর্থবছরে প্রতিদিন গড়ে ৬ কোটি ৭৯ ডলার প্রবাসী আয় হিসাবে দেশে এসেছিল।