আওয়ামী লীগের চাওয়া অনুযায়ী গঠিত নির্বাচন কমিশন গ্রহণযোগ্যতা পাবে না : খালেদা

102

khaledaক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের চাওয়া অনুযায়ী সার্চ কমিটি ও নির্বাচন কমিশন গঠন হলে তা জনগণ ও বিদেশিদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন খালেদা জিয়া। গত শনিবার রাতে এক মতবিনিময় সভায় বক্তব্যে ‘নিরপেক্ষ’ ব্যক্তিদের নিয়ে সার্চ কমিটি ও নির্বাচন কমিশনের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন বিএনপি চেয়ারপারসন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি কোনো দলের না, তিনি দেশের রাষ্ট্রপতি, তিনি সকলের কাছে সমান। আমরা যেটা আশা করব, জনগণ যেটা আশা করে রাষ্ট্রপতি সকলের কথা শুনে এমন সব ব্যক্তিদের দিয়ে সার্চ কমিটি বা নির্বাচন কমিশনটা গঠন করবেন, যেখানে সকলে বুঝতে পারে যে, রাষ্ট্রপতি সত্যিকার অর্থে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করেছেন। উনি (রাষ্ট্রপতি) যদি সরকারি দলের ইচ্ছে পূরণ করার জন্য যদি কোনো নির্বাচন কমিশন গঠন করে দেন, সেটা মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে না। কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে। সংবিধান অনুযায়ী নতুন কমিশন গঠন করতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ইতোধ্যে ৩১টি দলের সঙ্গে আলোচনা শেষ করেছেন। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে বেশিরভাগ দল সংবিধান অনুযায়ী আইন প্রণয়নের দাবি জানিয়েছে, তা না হওয়া পর্যন্ত সার্চ কমিটির পক্ষেই মত দিয়েছে অধিকাংশ দল। এই সার্চ কমিটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে প্রার্থী খুঁজে বের করবেন। বিএনপির সঙ্গে আলোচনার মধ্য দিয়েই গত ১৮ ডিসেম্বর বঙ্গভবনে এ সংলাপ শুরু হয়। সার্চ কমিটি গঠন ও ইসি নিয়োগের বিষয়ে ১৩ দফা প্রস্তাব দেয় দলটি। তবে শেষ পর্যন্ত সার্চ কমিটি ও নির্বাচন কমিশনে কাদের আনা হবে তা নিয়ে উদ্বেগে থাকার কথা জানান বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়া। জিয়া পরিষদের চেয়ারম্যান কবীর মুরাদের সভাপতিত্বে সভায় অধ্যাপক সলিমুল্লাহ খান, অধ্যাপক মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, অধ্যাপক ওবায়দুল ইসলাম, অধ্যাপক আলিম রহমান, অধ্যাপক একেএম মোস্তাফিজুর রহমান, অধ্যাপক নাহিদ জেবা, অধ্যাপক হাসনাত আলী, অধ্যাপক মো. মমতাজ হোসেন বক্তব্য রাখেন। সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।