দৈনিক গৌড় বাংলা

শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

আইনি বিপাকে অক্ষয়ের ‘জলি এলএলবি ৩’

দীর্ঘদিন ধরেই ব্যর্থতার বেড়াজালে বন্দী অক্ষয় কুমার। একের পর এক সিনেমা ফ্লপ যাচ্ছে অভিনেতার। তবে ‘জলি এলএলবি’ ফ্র্যাঞ্জাইজির তৃতীয় কিস্তি দিয়ে সেই ব্যর্থতার চক্র থেকে বেরিয়ে আসতে চান অক্ষয়। এমনিতেও ‘জলি এলএলবি’ দারুণ হিট একটি ফ্র্যাঞ্জাইজি। এর প্রথম দুটি সিনেমাই বক্স অফিসে সফল যার একটি করেছিলেন অক্ষয়। এবার তৃতীয় কিস্তিতেও থাকছেন অভিনেতা। সঙ্গে থাকছেন ফ্র্যাঞ্জাইজিটির প্রথম কিস্তির অভিনেতা আরশাদ ওয়ার্সি। তাই সিনেমাটি ঘিরে আগ্রহের কমতি নেই দর্শকদের। তবে শুরুর আগেই বাধার কবলে জলি এলএলবি! ভারতীয় একাধিক প্রতিবেদন অনুসারে, শুটিং শুরু হতে না হতেই আইনি বিপাকে অক্ষয় কুমার, আরশাদ ওয়ার্সি অভিনীত ‘জলি এলএলবি ৩’। সিনেমাটি বিরুদ্ধে আজমেঢ় আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন সেখানকার ডিস্ট্রিক্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট চন্দ্রভান সিং রাঠোর। তাঁর অভিযোগ, এতে বিচারপতি এবং আইনজীবীদের খুবই খাটো করে দেখানো হয়েছে।

সিনেমাটির শুটিং বন্ধের আর্জি জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন চন্দ্রভান সিং রাঠোর। আগের দুই সিনেমা দেখার পরই এই মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। প্রযোজক, পরিচালকের পাশাপাশি অভিনেতাদের বিরুদ্ধেও অভিযোগ রয়েছে তাঁর। কেন এভাবে বিচার ব্যবস্থা নিয়ে হাসিঠাট্টা করা হবে? সেই কৈফিয়তও চেয়েছেন তিনি। পাশাপাশি অবিলম্বে ‘জলি এলএলবি ৩’-এর শুটিং বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন আজমেঢ়ের ডিস্ট্রিক্ট বার অ্যাসোসিয়নের প্রেসিডেন্ট। এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে তিনি বলেন, ‘মনে তো হচ্ছে প্রযোজক, পরিচালক, অভিনেতারা দেশের বিচার ব্যবস্থাকে কোনো সম্মানই করে না। আজমেঢ়ের ডিআরএম অফিস-সহ নানা গ্রামে-গঞ্জে এখনও সিনেমার শুটিং হচ্ছে। আরও কয়েকদিন ধরে হবে। শুটিং চলাকালীন যেমন সিনেমা দেখা যাচ্ছে, তাতে একথা আরও বেশি মনে হচ্ছে।’ ২০১৩ সালে মুক্তি পায় আরসাদ ওয়ার্সি অভিনীত ‘জলি এলএলবি’। সিনেমাটি বক্স অফিসে ঝড় তুলেছিল। এরপরই অক্ষয় কুমারকে সঙ্গে নিয়ে ২০১৭ সালে মুক্তি পায় ‘জলি এলএলবি ২’। সেটিও প্রশংসিত হয়। বলিউড সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, গত ২৯ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে ‘জলিএলএলবি ৩’-এর শুটিং। সিনেমার গল্পে মুখোমুখি সংঘর্ষ বাঁধবে দুই জলির মধ্যে। বিচারপতি চরিত্রে সৌরভ শুক্লাকেই দেখা যাবে।

About The Author