অবশেষে ভাবনার স্বপ্ন পূরণ

12

আশনা হাবিব ভাবনা এর আগে বেশ ক’টি ইন্টারভিউতে বলেছিলেন তিনি বরেণ্য অভিনেতা আফজাল হোসেনের সাথে একটি কাজ করতে চান। তার সাথে স্ক্রিন শেয়ার করতে চান। অবশেষে নিজের ক্যারিয়ারের এমন ম্যাচিউরড সময়ে ভাবনা তার সেই প্রিয় সময়টাকে পেলেন। সেলিনা হোসেনের উপন্যাস অবলম্বনে দেশভাগ, ভাষা আন্দোলনের মতো বড় প্রেক্ষাপটের একটি ছবিতে কাজ করছেন আশনা হাবিব ভাবনা। ছবির নির্মাতা হাবিবুল ইসলাম হাবিবের দ্বিতীয় চলচ্চিত্র এটি। প্রথমবারের মতো নির্মাতা বাবার নির্দেশনায় কোনো চলচ্চিত্রে কাজ করছেন অভিনেত্রী ভাবনা। ভাবনা বলেন, ‘বাবা ছবিটি অনুদানের জন্য জমা দিয়েছেন।

তিনি ছবির অনুদান পেয়েছেন। এসব আসলে আমরা কেউই কিছু জানতাম না। পরে যখন খবরটি পড়লাম, তখনই জানলাম। আর একটা ভালো কাজের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে পারবো এটাই বড় কথা। একজন অভিনেতা হিসেবে নিজের কাজ, নিজের শিল্পসত্তা প্রকাশ করাটাই তো বড় আনন্দের। আর বাবার নির্মাণে কাজের ক্ষেত্রে বলবো, বলিউডেও কিন্তু অনেকদিন পর বনি কাপুর তার মেয়ে জাহ্নবি কাপুরকে তার নিজের ছবি নিলেন! তো এখানেও হোক না!’ আফজাল হোসেনের সাথে স্ক্রিন শেয়ার প্রসঙ্গে ভাবনা বলেন, ‘এটা আমার দীর্ঘদিনের চাওয়া ছিল। একটা স্বপ্ন পূরণ বলতে পারেন। একসাথে এক টিমে কাজ করবো।

গুণী মানুষদের সাথে কাজ করলে শিখতেও পারি প্রতিনিয়ত।’ উল্লেখ্য, দেশের বিখ্যাত নাট্যগুরু জামিল আহমেদের কাছে অভিনয় প্রশিক্ষণ নিলেন সম্প্রতি আশনা হাবিব ভাবনা। ভাবনা জানান, নিজেকে অভিনেতা হিসেবে সমৃদ্ধ করতে চাই প্রতিনিয়ত। সেই চেষ্টা থেকেই স্যারের ক্লাসে যাওয়া।’ অন্যদিকে বরেণ্য অভিনেতা নির্মাতা আফজাল হোসেন ওটিটি প্লাটফর্মে তার নতুন লুক, নতুন নতুন গল্পে হাজির হচ্ছেন নিয়মিত। দর্শকরাও পাচ্ছেন অন্যস্বাদের এক আফজাল হোসেনকে। মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নির্মাণে ‘লেডিজ অ্যান্ড জেন্টলম্যান’-এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের পর এবার আরেক গুণী নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরীর ‘বোধ’-এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন। যা এরইমধ্যে দর্শকদের মুগ্ধতা কুড়াচ্ছে। আফজাল হোসেন ‘বোধ’-এর পরেই ‘যাপিত জীবন’ চলচ্চিত্রের কাজে সময় দেবেন।